অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অন্যতম পূর্বশর্ত বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ সৃষ্টি ” শেখ হাসিনা

লেখক:
প্রকাশ: জুন ১৩, ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অন্যতম পূর্বশর্ত বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ সৃষ্টি। বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে অনুকূল বিনিয়োগ পরিবেশ সৃষ্টির জন্য বিশ্ব ব্যাংকের ‘ease of doing business’ কার্যক্রমের আত্ততায় ২০১৭ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে মোট ৫৫টি সংস্কার বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

বুধবার জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংসদ সদস্য আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিমের লিখিত প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। এর আগে বিকাল ৪টার দিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় ও ২০২৪-২৫ অর্থ-বছরের বাজেট অধিবেশন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি খাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগে উৎসাহদান, শিল্প স্থাপনে প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা ও সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে ২০১৬ সনের ৩৬নং আইনের মাধ্যমে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে সরকার কর্তৃক বিডা ছাড়াও গঠিত অন্যান্য বিনিয়োগ উন্নয়ন সংস্থাসমূহ হলো: ক) বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা); খ) বাংলাদেশ অর্থনৈতিক প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেপজা): গ) বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক অথরিটি (এইচটিপিএ); ঘ) পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ অথরিটি (পিপিপিএ)।
তিনি আরও বলেন, বিনিয়োগকারীগণকে প্রয়োজনীয় সেবা প্রদান নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সালে ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। ওই আইনের আলোকে ওয়ান স্টপ সার্ভিস (বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ) বিধিমালা ২০২০ গেজেট আকারে ১০ মে, ২০২০ সালে প্রণয়ন করা হয়েছে।

সরকার প্রধান বলেন, বাংলাদেশের ব্যবসা ও বিনিয়োগের পরিবেশ উন্নয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নয়ন কর্মসূচি (Bangladesh Investment Climate Improvement Program) বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ কর্মসূচির আওতায় ৭টি পিলার নির্ধারণ করা হয়েছে এবং ৭টি পিলারের বিপরীতে ১১০টি সংস্কার প্রস্তাব নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রস্তাবিত সংস্কারগুলো বাস্তবায়নের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

বিডা থেকে বিগত ২৮-২৯ নভেম্বর ২০২১ তারিখে বাংলাদেশসহ মোট ২৭টি দেশের ৩০৭০ জন বিনিয়োগকারীর অংশগ্রহণে ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টমেন্ট সামিট, ২০২১ আয়োজন করা হয়। ২০-২৪ নভেম্বর ২০২২ তারিখে International Women Entreprenure’s Summit (IWES) 2022 আয়োজন করা হয়। এফবিসিসিআই-এর সাথে যৌথভাবে ১১-১৩ মার্চ ২০২৩ তারিখে প্রায় ৭০০ জন দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীর অংশগ্রহণে বাংলাদেশ বিজনেস সামিট, ২০২০ আয়োজন করা হয়। ১৩-১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে Commonwealth Trade and Investment Forum Bangladesh, 2023 আয়োজন করা হয়। Bangladesh Investment Development Authority (BIDA) এবং Bangladesh Securities and Exchange Commission-এর যৌথ উদ্যোগে ২২-২৫ আগস্ট ২০২৩ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকা এ Bangladesh Trade and Business Summit এবং ২১ অক্টোবর-০৩ নভেম্বর ২০২৩ তারিখে France, Germany and, Belgium 4 “Bangladesh Trade and investment Summit” আয়োজন করা হয়। এছাড়া, বিনিয়োগ আকর্ষণে বিজা নিয়মিতভাবে বিনিয়োগ বিষয়ক সভা/সেমিনার আয়োজন করে থাকে।