শরীয়তপুরে অবৈধ পলিথিন জব্দের পর করা হলো আংশিক ধ্বংস- অতঃপর।

লেখক:
প্রকাশ: জুলাই ২, ২০২৪

শরীয়তপুরের জাজিরা পদ্মাসেতু এলাকায় সারে ৪শ কেজি অবৈধ পলিথিন জব্দের পর আদালতের নির্দেশে তা আংশিক ধ্বংস করে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার -২৭ জুন- পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানায় জাজিরা উপজেলা সহকারী কমিশনার -ভূমি-অতিরিক্ত দায়িত্ব- সাদিয়া ইসলাম লুনা- জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: রাসেল নোমান ও এঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা সাব ইন্সপেক্টর জসিম উদ্দিনের উপস্থিতিতে পলিথিনগুলো আংশিক ধ্বংস করে ব্যবহারের অনুপযোগী করা হয়।

পরে তা বৈধভাবে পুনর্ব্যবহারের জন্য নিলামের উদ্দেশ্যে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হয়।
এর আগে গত ২৭ এপ্রিল ভোর চারটার দিকে ট্রাকটি আটক করে পুলিশ। এসময় ৯টি বস্তায় মোট ৪৫০ কেজি পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর সামগ্রী নিষিদ্ধ পলিথিন জব্দ করা হয় ও বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে নিষিদ্ধ পণ্য পরিবহনের দায়ে টাটা কোম্পানির টাঙ্গাইল ট-১১-০২১১ নম্বরের আটক ট্রাকটি জব্দ করা হয়।

শরীয়তপুর জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: রাসেল নোমান জাজিরা সময়কে বলেন- পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানা পুলিশ অবৈধ পলিথিনগুলো জব্দের পর যেহেতু তা পুড়িয়ে পুরোপুরি ধ্বংস করা সম্ভব নয়। কারন তাতে পরিবেশের ক্ষতি হবে তাই আদালতের নির্দেশে তা আংশিক ধ্বংস করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এগুলো আমরা রিসাইকেলিংয়ের জন্য পবর্তিতে নিলামে তুলব।

জাজিরা উপজেলা সহকারী কমিশনার-ভূমি- অতিরিক্ত দায়িত্ব- সাদিয়া ইসলাম লুনাজাজিরা সময়কে বলেন- পুলিশ অবৈধ পলিথিন আটকের পর আদালতের নির্দেশে পলিথিনগুলো আংশিক ধ্বংসের পর অবশিষ্টাংশ পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।