শরীয়তপুরে রাসেল ভাইপার আটক করে স্নেক রেসকিউ টিমের হাতে তুলে দিলো স্থানীয়রা।

লেখক:
প্রকাশ: জুন ২৩, ২০২৪

শরীয়তপুরের জাজিরাতে পদ্মা নদী হতে পাঁচ ফুট দৈর্ঘ্যের একটি বিষধর রাসেল ভাইপার সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। পরে সাপটিকে স্নেক রেসকিউ টিমের হাত তুলে দেয়া হয়।

শনিবার -২২ জুন- রাতে উপজেলার জাজিরা ইউনিয়নের জব্বর আলী আকন কান্দি এলাকা থেকে সাপটিকে ধরা হয়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়- শনিবার সন্ধ্যায় জব্বর আলী আকন কান্দি এলাকার সোহেল মাদবরসহ বেশ কয়েকজন নৌকা নিয়ে পদ্মা নদী পাড় হচ্ছিলেন। এসময় তারা একটি সাপকে সাতরিয়ে নদী পাড় হতে দেখেন। এসময় কাছে গিয়ে দেখতে পারে এটি একটি রাসেল ভাইপার সাপ। তারা সাপটিকে নৌকা চালানোর বাঁশের লাঠি দিয়ে সাপটিকে পিটিয়ে আহত করেন। পরে নৌকায় থাকা একটি মাছ ধরার চাইয়ের ভেতরে ঢুকিয়ে এলাকায় নিয়ে আসেন। বিষয়টি স্নেক রেসকিউ টিম বাংলাদেশকে জানালে তারা এসে সাপটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়
সাপটি ধরে আনা সোহেল মাদবর বলেন- আমরা পদ্মা নদী পাড় হয়ে বাড়ি ফেরার পথে সাপটিকে দেখতে পাই। পরে লাঠি দিয়ে সাপটিকে পিটিয়ে আহত করে চাইয়ের মধ্যে করে নিয়ে আসি।

প্রত্যক্ষদর্শী রাসেল আকন জাজিরা সময়কে বলেন- জাজিরায় রাসেলস ভাইপারের বিরচন মারাত্মক আকার ধারন করেছে। আমরা খুবেই আতংকিত হয়ে থাকি সব সময়। এই বিষধর সাপ থেকে আমরা মুক্তি চাই। সরকার যেন একটা কিছুর ব্যবস্থা করে।

এ বিষয়ে স্নেক রেসকিউ টিম বাংলাদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট মেহেদী হাসান জুবায়ের জাজিরা সময়কে বলেন- আমরা ফোনের মাধ্যমে জানতে পারি জাজিরায় একটি রাসেল ভাইপার সাপ ধরা পড়েছে রয়েছে। পরে ঢাকা থেকে আমাদের একটি দল নিয়ে এসে রাত ১২ টার দিকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় সাপটি উদ্ধার করি। তবে সাপটি কিছুটা আহত অবস্থায় ছিলো।